Posts

কষ্ট ঢাকি Concealer-এ

মানুষের নজর সবার আগে যেখানে পরে তা হলো আমাদের Face এর উপর সেখানে মুখের ত্বকে এ যদি থাকে ব্রণ বা ব্রণের দাগ, চোখের নিচে যদি থাকে Dark-Circle তাহলে এই কষ্ট কোথায় লুকাই???

Flawless, ফুল কভারেজ মেকআপ কনসিলার ব্যবহার না করলেই নয়। মেকআপ এর ক্ষেত্রে দাগ-ছোপ হীন ক্লিয়ার Skin look এর জন্য কনসিলার ব্যবহার করা হয়। কনসিলার মূলত ফাউন্ডেশন এর মতই Natural স্কিন কভার করতে ব্যবহার করা হয় কিন্তু এটি ফাউন্ডেশন এর চেয়ে একটু ঘন এবং মোটা আবরন সৃষ্টি করে। কনসিলার ব্যবহার করে ত্বকের দাগ, অসমান রং, চোখের নিচে কালো দাগ, বলিরেখা, এছাড়াও ত্বকের যে কোন অসামঞ্জস্যতা ঢেকে দিয়ে মসৃণ এবং ন্যাচারাল ক্লিয়ার look পেতে সাহায্য করে। কনসিলার কয়েক ধরনের হয়ে থাকে-
1.Colour-Correcting Concealer.
2.Powder Concealer.
3.Creamy Liquid Concealer.
4.Water Based Concealer
আবার এসব কনসিলারের মধ্যে 4 ধরনের ভাগ হয়ে থাকে- MATTE, WATERY, SHIMMER, OILY
কনসিলার কয়েক ভাবে ব্যবহার করা যায়-
#ব্রণ বা ব্রণের দাগ, Dark-Circle ঢাকতে,
#ত্বকের অসমান রং ঢাকতে,
#আই শ্যাডোর বেইজ হিসেবে,
#ত্বকে অ্যান্টি-গ্রাভিটি Illusion Create করে ত্বক আরো Young দেখাতে,
#Nose, Bruew, Face এরিয়া সেইপ এ আনতে Concealer কাজ করে ।
কনসিলার ব্যবহারের পদ্ধতি- কনসিলার ব্যবহারের আগে ত্বক সুন্দর ভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে। কনসিলার চাইলে ফাউন্ডেশন এর উপরে অথবা ফাউন্ডেশন ব্যবহারের আগে প্রয়োজনীয় পরিমাণে ত্বকের যেসব অংশে মাস্ক ইফেক্ট করা প্রয়োজন সেসব অংশে দিতে হবে। কনসিলার রাব না করে ভালোভাবে স্পঞ্জ দিয়ে চেপে চেপে বসিয়ে দিতে হবে, কনসিলার অনেকক্ষণ পর্যন্ত ত্বকে ব্লেন্ড করে রাখতে এর ওপর লুজ-পাউডার ব্যবহার করা ভালো। তবে কনসিলার অবশ্যই স্কিন টাইপ অনুযায়ী বেছে নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *