Posts

হারবাল এবং অর্গানিক ফেসপ্যাক এর মধ্যে পার্থক্য

‘হারবাল’ এবং ‘অর্গানিক’ এ দুটি শব্দকেই আমরা অনেকেই এক মনে করে থাকি কিন্তু, আদতে তা একেবারেই নয়। হারবাল পণ্য সম্পূর্ণভাবে অর্গানিক হতে পারে কিন্তু অর্গানিক পণ্য কখনোই হারবাল নয়।
হারবাল ফেসপ্যাক গুলো প্রাকৃতিক ভেষজ দিয়ে তৈরি করা হয়ে থাকে বটে, তবে সেসব ভেষজের গুণাগুণ অক্ষুন্ন রাখার জন্য এবং কার্যকারিতা বৃদ্ধির জন্য এতে প্রয়োজনীয় মাত্রায় রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এতে হারবাল পণ্য অনেকদিন পর্যন্ত ভালো থাকে এবং এর সেলফ লাইফ বেশি থাকে।
অন্যদিকে অর্গানিক পণ্যর ক্ষেত্রে প্রস্তুত থেকে শুরু করে বাজারজাত এবং স্টোর করার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করা হয় না অর্গানিক পণ্য গুলো সম্পূর্ণ ধরনের রাসায়নিক উপাদান এমনকি যেসব ভেষজ ব্যবহার করা হয় সেগুলো উৎপাদনে কোন ধরনের রাসায়নিক সার এবং কীটনাশক ব্যবহৃত হয় না।
সর্ব দিক বিবেচনা করে হারবাল এবং অর্গানিক এর মধ্যে অর্গানিক পণ্যগুলি সবচেয়ে স্থায়ী এবং কার্যকরী ফলাফল দেয় । হারবাল এর তুলনায় অর্গানিক পণ্য গুলো দেরিতে কাজ করলেও নিয়মিত ব্যবহারের অর্গানিক পণ্য গুলো সর্বাধিক ভালো ফলাফল দেয়। ত্বক এবং চুলের যত্নে অর্গানিক পণ্য ব্যবহারে আশানুরূপ ফল পাওয়া যায়। এতে কোন ধরনের স্বাস্থ্যহানি ঘটে না এবং হরমোনাল পরিবর্তনের আশঙ্কা থাকে না, যাদের সেনসিটিভ ত্বক তারা অনায়াসে অর্গানিক ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারে।
ত্বকের ব্রণ ,ব্রণের দাগ , গর্ত, বলিরেখা , লালচে এবং ফোলা ভাব কমাতে আমাদের কাছে আছে অর্গানিক ফেসপ্যাক। এছাড়া ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারিয়ে গিয়ে যখন নিষ্প্রাণ ভাব চলে আসে তখন ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে দিতে এসব অর্গানিক ফেসপ্যাক অনেক ভালো কাজ করে

চুলের ড্যামেজ রিপেয়ার করে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল এবং প্রাণবন্ত চুলের জন্য অর্গানিক হেয়ার মাস্ক গুলো জাদুর মত কাজ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *